রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

শান্তিগঞ্জে আমার গ্রাম আমার প্রাণ-এর মানবিক কার্যক্রম



ভয়াবহ আকস্মিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্হ সুনামগঞ্জ জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলায় দুদিন ব্যাপি দুর্গতদের মধ্যে মানবিক কার্যক্রম চালিয়েছে ‘আমার গ্রাম আমার প্রাণ’ সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

মঙ্গল ও বুধবার উপজেলার জয়কলস, উজানীগাঁও, ফহেপুর, মির্জাপুর ও মানিক পুর গ্রামের দেড় শতাধিক পরিবারকে সহয়তা প্রদান করা হয়।

মঙ্গলবার উজানী গাঁও গ্রামে বাড়ি বাড়ি গিয় কুড়িটি পরিবারকে নগদ অর্থ ও বুধবার শান্তিগজ্ঞ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সর পাশের অফিস প্রাঙ্গণে খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণ করা হয়। নগদ অর্থ ও প্যাকেট গ্রামগুলোর তালিকা ভুক্ত পরিবারের হাত তুলে দেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সিলেটের সিনিয়র সাংবাদিক, সিলেট নিউজ টুয়েন্টফোর ডটকম সম্পাদক খালেদ আহমদ।

বুধবারে খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণকালে আরো অংশ নেন, শান্তিগজ্ঞ থানার এসআই অনপম, সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সাবেক সভাপতি ফরিদুর রহমান ফরিদ, সমাজসেবী আফতাব আলী, সয়ফুল ইসলাম,সাংবাদিক মো. আবু সাঈদ, সাবেক ছাত্র নেতা ইজহারুজ্জামান ইজহার, জানিউর রশিদ জানি, তারেকুজ্জামান তারেক, সেচ্ছসেবী মো. হাবিবুর রহমান, আব্দুল কাইয়ুম, আব্দুল কালাম, আব্দুস ছালাম, কলিম উদ্দিন, আলীনূর, রাসেল মিয়া প্রমুখ।

খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেটে ছিল -চাল, মশুরি ডাল, আলু, পিয়াজ, সোয়াবিন তেল, লবন, বিস্কুট ও লাক্স সাবান।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে সাংবাদিক খালেদ আহমদ বলেন, এবারের বন্যায় দুর্গতদের পাশে দাড়িয়ে বিভিন্ন সামাজিক সেচ্ছাসেবী সংগঠন মানবতার অনন্য নজির সৃষ্টি করেছে। দেশ প্রেমিক সেনাবাহিনী ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী দ্রত গতিতে দুর্গতদের উদ্ধার ও ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে জানমালের ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে এনেছেন। ভিটেহার, ঘরহারা লোকজনকে পুনর্বাসনে ও কর্মসংস্হান সৃষ্টিতে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংগটনগুলোকে এগিয়ে আসতে হবে। তা নাহলে দুর্গত মানুষগুলো সহজে ঘুরে দাঁড়াতে পারবেনা বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন