রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

হাওরঞ্চলে আর সড়ক নয়, হবে উড়াল সড়ক: পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান




পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, হাওরাঞ্চলে আর আগের মতো যত্রতত্র ভাবে মাটি ভরাট করে রাস্তা বা সড়ক নির্মাণ করা করার কারণে বন্যা এলে এই সড়ক গুলোই মানুষের দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাড়ায়। সড়ক গুলোর কারণে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিকে নামতে দেয় না। প্রতিটি সড়কই পানি নিষ্কাশনে প্রতিবন্ধকনা সৃষ্টি করে। তাই হাওরঞ্চলের মানুষের প্রতি বছরই বন্যা এলে ব্যাপক ভাবে ক্ষতি হয়। তাই আগের মতো আর হাওরঞ্চলে মাটি ভরাট করে সড়ক নির্মাণ করা হবে না। যোগাযোগের জন্য নির্মাণ করা হবে উড়াল সড়ক।
রবিবার সকাল ১১টায় সুনামগঞ্জ জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলার দরগাহপুর মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে পাথারিয়া ইউনিয়নের ৭ শত বন্যা দুর্গত পরিবারের মাঝে নিজ উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কালে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ত্রাণ সামগ্রী হিসেবে ছিলো, ১০ কেজি চাল, ১ লিটার তৈল, ১ কেজি চিনি, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবণ, ২০০ গ্রাম হলুদ গুড়া, ২০০ গ্রাম ধনিয়া গুড়া সহ মোট ১৪ কেজি ৪০০ গ্রাম ১টি পেকেট।

মন্ত্রী আরো বলেন, এ দুর্যোগ আমাদের থাকবে না, আল্লাহর রহমতে এই বিপদ কাটিয়ে উঠবো আমরা। তবে আমাদেরকে আরো মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। বিশেষ করে বাড়ি ফেরা কার্যক্রমে আমাদের আরো কাজ করতে হবে। যাতে করে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষজন নিজ গৃহে ভালো মতো থাকতে পারেন। আমরা ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের ঘর-বাড়ি মেরামত ও নির্মাণ করে দেবো। সরকার সেই লক্ষ্যে দুর্গত মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। সেই সাথে নগ অর্থ, খাদ্য সামগ্রী, ঢেউ টিন সহ নির্মাণ সামগ্রীও বিতরণ করবো।
তিনি বলেন, দেশের বিত্তবান মানুষও বন্যা দুর্গত মানুষর পাশে ব্যাপক ভাবেই দাড়িয়েছেন। আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। যারা এই ক্রান্তিকালে মানুষের পাশে দাড়িয়ে অন্ন-বস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করেছেন তারা মহত কাজ করেছেন। তবে এই পাশে দাড়ানো আরো বেশি প্রয়োজন।
এ সময় উপস্থিতি ছিলেন, সুনামগঞ্জ পৌর সভার মেয়র নাদের বখ্ত, পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব হারুন অর রশিদ, শান্তিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনোয়ার উজ জামান, দরগাহপুর মাদ্রাসার মুহতামিম শায়খুল হাদিস আল্লামা নুরুল ইসলাম খাঁন, শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নুর হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান দুলন রানী তালুকদার, সুনামগঞ্জ এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম, শান্তিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. খালেদ চৌধুরী, পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, জয়কলস ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত সুজন, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছদরুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি রয়েল আহমদ, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাইম আহমদ সহ প্রমূখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন