মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২ | ১৪ আষাঢ় ১৪২৯

ফসল রক্ষাবাঁধে অনিয়ম দুর্নীতি হলে কঠোর আন্দোলনের হবে: হাওর বাঁচাও আন্দোলন



হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধে নীতিমালা অনুযায়ি গণশুনানীর মাধ্যমে সকল পিআইসি গঠন করে অভিলম্বে বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু করা, প্রতি উপজেলায় পাউবোর দায়িত্বরত শাখা কর্মকর্তা(এসও) এর বদলী ও হাওরে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করণসহ তিন দাবিতে মানববন্ধন করেছে হাওর বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটি।

শহরে আলফাত উদ্দিন স্কয়ারে অনুষ্ঠিত মানবন্ধনে বক্তরা এবার হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধে অনিয়ম দুনীতি হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি প্রদান করেছেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সরকার প্রতিবছর হাওরের ফসলের সুরক্ষায় ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণের জন্য কোটি কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়। এবার প্রায় ৭০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করা যাচ্ছেযে, যেখানে ডিসেম্বরের মধ্যে ১৫ তারিখের মধ্যে সংশ্লিষ্ট এলাকায় গণশুনানীর মাধ্যমে পিআইসি কমিটি গঠন করে কাজ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখও পর্যন্ত তা দৃশ্যমান হচ্ছে না। বিগত বছরগুলোতে নির্মিত বেড়িবাঁধ অক্ষত থাকলেও সেখানেই নতুন করে লাখ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে। সরকারের টাকা লুটপাট করতে কোনো কারণ ছাড়াই সংশ্লিষ্ট হাওর গুলোতে বিগত বছরের চেয়ে তিনগুন পিআইসি গঠন করা হচ্ছে। নীতি মালা অনুযায়ি সংশ্লিষ্ট হাওরের কৃষকদের প্রাধান্য দেয়ার কথা থাকলেও এসব পিআইসি দলীয় লোকদের অর্ন্তভুক্ত করা হচ্ছে। আর এর নেপত্ম্যে রয়েছেন সংশ্লিষ্ট হাওরের এমপিও ও জনপ্রতিনিধিরা।

বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন একই কর্মস্থলে থাকার ফলে এসব অনিয়ম দুর্নীতির সাথে পাউবোর কর্মকর্তারা জড়িয়ে পড়ছেন। দুর্নীতিবাজদের সাথে হাতাত করে অনিয়ম করে কৃষকের ভাগ্য নিয়ে খেলা করছেন তারা। তাই অভিলম্বে তাদের বদলীর দাবি তোলেন বক্তারা।

বক্তারা আশঙ্কা করে বলেন, হাওরের বোরো আবাদ এক মাস পিচিয়ে গেছে। ফলে ঝুঁকির মধ্যে আছেন কৃষককুল। যত্রতত্র অপ্রয়োজনী বাঁধ নির্মাণে হাওরের পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করা হয়েছে। তাই দ্রুত সময়ে হাওরের পানি নিষ্কাশনে বিহীত ব্যবস্থা গ্রহণে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট দাবি তুলেন তারা। নতুবা অনিয়ম দুর্নীতি আর দায়িত্বহীনতায় ২০১৭ সালের মতো হাওরের ফসল ডুবি হলে আইনী লড়াইয়ের সাথে সাথে মাঠে আন্দোলনে সংক্রিয় থাকবে হাওর বাঁচাও আন্দোলন এমন প্রত্যয় বক্তয় করেণ তারা।

সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সালেহীর চৌধুরী শুভ‘র সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হাওর বাঁচাও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি সুকেন্দু সেন, সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক নির্মল ভট্টাচার্য্য, সিনিয়র সদস্য ইয়াকুব বখত বহলুল , অধ্যক্ষ রবিউল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক একে কুদরত পাশা, সদর উপজেলা কমিটির সদস্য সচিব শহীদনূর আহমেদ, মোল্লাপাড়া ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল আমীন, সদস্য আফরোজ রায়হান, গৌরারং ইউনিয়ন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক জুয়েল মিয়া প্রমুখ।

এসময় অন্যান্যেম মধ্যে উপস্থিত ছিলের সংগঠনের উপদেষ্টা রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, সদর উপজেলা কমিটির আহ্বায়ক চন্দন রায়, যুগ্ম আহ্বায়ক স্বপন কুমার দাস, মুক্তিযোদ্ধা মনির উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা আলা উদ্দিন, সদস্য মানব চৌধুরী প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •