শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতিতে সিলেটের মিটার রিডাররা



চাকুরী নিয়মিত করণসহ চার দফা দাবিতে অনির্দিষ্ট কালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এ ২ এর মিটার রিডার এবং মেসেঞ্জার পদে কর্মরতরা।

রবিবার (২১ অক্টোবর) নিজ নিজ কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

কর্মসূচিতে সিলেট জেলার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতায় সকল জোনাল অফিসের মিটার রিডার ও মেসেঞ্জার সদস্যরা অংশ নেন। এদিকে টানা কর্মবিরতির ফলে বিল প্রাপ্তি নিয়ে গ্রাহকদের ভোগান্তিতে পড়ারও আশংকা দেখা দিয়েছে।

গত ১৫ অক্টোবর থেকে নিয়মিত কর্মবিরতি পালন করলেও আজ রোববার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন শুরু করেন আন্দোলনকারীরা। তাদের দাবি সরকার বিরোধী বিএনপি-জামাতপন্থী কিছু কর্মকর্তা নিয়োগ বাণিজ্য করার পায়তারা চালাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় কাজের পরিধি দ্বিগুণ করে বাড়তি চাপ প্রয়োগ করে চাকুরী থেকে ছাটাইয়ের পরিকল্পনা চালাচ্ছেন। পূর্বে একজন মিটার রিডার দুই হাজার মিটারের রিডিং ও মেসেঞ্জাররা দুই হাজার গ্রাহকের বিল বিতরণ করতেন। বর্তমানে দুটি কাজ একজনকেই করতে হচ্ছে। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে গ্রাহক ভোগান্তির।

অবিলম্বে চাকুরী নিয়মিতকরণ, সকল সনদধারীকে পূর্বের নিয়মে পুনর্বহাল, কাজের পরিধি কমানো সহ পরীক্ষা ও জেলা কোঠার বিধান বাতিল না করা হয় তাহলে তারা কর্মবিরতি চালিয়ে যাবার পাশাপাশি আরো কঠোর আন্দোলন কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অনুজ চৌধুরী, বাহাউদ্দিন, হেমন্ত তালুকদার, কাজল চন্দ্র, সজল চন্দ্র সাহা, অমিত দাস, সাজ উদ্দিন, হানিফ মণ্ডল, মোবারক হোসেন, সুমন, সোহেল মিয়া, সত্যেন্দ্র ধর, জিতেন্দ্র, নয়ন, সুনীল, তফজ্জিল, শাহ আলম, জগন্নাথ, আব্দুর রহমান, কামাল, আনোয়ার প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন