শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯

ইস্তাম্বুলের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করল রুশ চার্চ



অর্থোডক্স খৃষ্টানদের ইস্তাম্বুলভিত্তিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করেছে রাশিয়ার অর্থোডক্স চার্চ।

ইউক্রেনের অর্থোডক্স চার্চকে স্বাধীন হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে রাশিয়া কনস্টান্টিনোপলের অর্থোডক্স খৃষ্টান অভিভাবকদের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করল। গত এক শতকেরও বেশি সময়কালের মধ্যে এটাই অর্থোডক্স চার্চের সবচেয়ে বড় অভ্যন্তরীণ বিরোধ।

কনস্টান্টিনোপল-ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রতি ইউক্রেনের চার্চকে মস্কোর নিয়ন্ত্রণ থেকে স্বাধীন বলে ঘোষণা করে।

বিবিসি জানায়, সোমবার রাশিয়ান অর্থোডক্স চার্চ কর্তৃপক্ষ কনস্টান্টিনোপলের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের এই সিদ্ধান্ত নেয়।

উল্লেখ্য, রাশিয়ার চার্চ পূর্ব ইউক্রেনে বিদ্রোহীদের প্রশ্রয় দিচ্ছে বলে অভিযোগ করে আসছেন ইউক্রেনের খৃষ্টানরা।

বিশ্বের প্রায় ৩০ কোটি অর্থোডক্স খৃষ্টান কনস্টান্টিনোপলের নির্দেশনা অনুসরণ করে।

মস্কো ইউক্রেনের চার্চের স্বাধীনতাকে প্রত্যাখ্যান করেছে। রুশ বিশপ মেট্রোপলিটন হিলারিওন এটাকে ‘ঐতিহাসিক সত্যের পরিপন্থী’ বলে মন্তব্য করেছেন।

কনস্টান্টিনোপল আগে ইউক্রেনের চার্চকে স্বাধীন ঘোষণা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল। কিন্তু গত সপ্তাহে তারা এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেঙ্কো বলেন, চার্চের স্বাধীনতা ইউক্রেনের স্বাধীনতার সঙ্গেই চলে আসে। ‘এটা ইউক্রেনের জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়। ইউক্রেনের সার্বভৌমত্বের বিষয়,’ বলেন তিনি।

সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর ইউক্রেন ১৯৯১ সালে স্বাধীন হয়। কিন্তু সম্প্রতি ২০১৪ সালে রাশিয়া ক্রিমিয়া দখল করে নেয়ায় এবং পূর্ব ইউক্রেনের লড়াই শুরুর পর থেকে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক বিষিয়ে ওঠে।

সংবাদটি শেয়ার করুন