রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

গ্র্যাজুয়েটের অংশগ্রহণে ঢাবির সমাবর্তন শুরু



রেকর্ড সংখ্যক গ্র্যাজুয়েটদের অংশগ্রহণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ৫১তম সমাবর্তন অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে।

শনিবার (০৬ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

এর আগে রাষ্ট্রপতির নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট, সিন্ডিকেট, একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অংশগ্রহণে সমাবর্তন শোভাযাত্রা কার্জন হল থেকে শুরু হয়। এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। এবারের সমাবর্তনে সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। বক্তব্য রাখবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমাদ। দুপুর দেড়টায় অনুষ্ঠানের কর্মসূচি শেষ হবে।

এদিকে, সমাবর্তনে যোগ দিতে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে গ্র্যাজুয়েটরা আসা শুরু করে। বেলা ১১টার মধ্যে সবার অংশগ্রহণে সমাবর্তনস্থল পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে।

সমাবর্তনে অংশ নেওয়া রায়হানুল ইসলাম আবির বাংলানিউজকে বলেন, প্রতিটি শিক্ষার্থীদের জীবনে সমাবর্তনের গুরুত্ব অন্যরকম। কারণ আমরা অফিসিয়ালি গ্র্যাজুয়েট হিসেবে স্বীকৃতি পাচ্ছি।

অন্যদিকে স্বাধীনতার পর থেকে দীর্ঘদিন ঢাবির সমাবর্তন বন্ধ থাকলেও বর্তমানে নিয়মিত সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হওয়াটা আনন্দের।

অধিভুক্ত সাত কলেজের রেজিস্ট্রেশনকৃত গ্র্যাজুয়েটরা ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। ৫১তম সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য ২১ হাজার ১১১ জন গ্র্যাজুয়েট রেজিস্ট্রেশন করেছেন। এ সংখ্যা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তনের ইতিহাসে সর্বাধিক।

অনুষ্ঠানে কৃতি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের ৯৬টি স্বর্ণপদক, ৮১ জনকে পিএইচডি এবং ২৭ জনকে এম ফিল ডিগ্রি দেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন