রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

শাল্লায় প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান: সুরঞ্জিত পত্নীকে নৌকা প্রতীকে সমর্থন দিন



অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, আমার নেতা প্রয়াত সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের সহধর্মীকে যদি আপনারা বিজয়ী করেন, তাহলে ভাটি অঞ্চলের আর কোনো সমস্যাই থাকবে না। এই সমস্য দূর করার জন্যই সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। ড. জয়া সেনগুপ্তা একজন সৎ, আদর্শ নিষ্ঠাবান ও উচ্চশিক্ষিত এক নারী। দাদার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে তিনি বদ্ধপরিকর। তাকে আবারও আপনারা শেখ হাসিনার নৌকাপ্রতীকে বিজয়ী করুন। এমএ মান্নান বলেন, সারাদেশের ন্যায় সুনামগঞ্জের সর্বত্র উন্নয়নের জোয়ার বইছে। যোগাযোগে বিপ্লব ঘটেছে হাওরে। তিনি বলেন, আগামীতে খেলা দেখতে সড়কপথে মানুষ আসবে শাল্লায়।
শুক্রবার(৫ অক্টোবর) বিকেলে শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আব্দুল মান্নান চৌধুরী আন্ত: ইউনিয়ন ফুটবল প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে শাল্লার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও ধারাভাষ্যকার জ্যোতিষ তালুকদার বাদলের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ ড. জয়া সেনগুপ্তা। এমপি জয়া সেনগুপ্তা বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চায় অত্যন্ত আন্তরিক। যুবকদেরকে উজ্জীবিত করার জন্য আজকের এই খেলার আয়োজন। মাঠে হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতি বর্তমান প্রজন্মকে উৎসাহিত করবে বলে আমার বিশ্বাস। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী। এক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে নৌকা দেবেন বলে আমার বিশ্বাস। তিনি আরো বলেন, আমার স্বামীর অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করার জন্যই আমি রাজনীতিতে এসেছি। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দিরাই সার্কেল বেলায়েত হোসেন, রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর মাছুম আলম, শাল্লা সরকারি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গনেন্দ্র চন্দ্র সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব সোবহানী চৌধুরী, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অলিউল হক, সহ-সভাপতি আব্দুস ছত্তার মিয়া, আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন চৌধুরী, সাবেক বাহাড়া ইউপি চেয়ারম্যান রামানন্দ দাস, দিরাই উপজেলার সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাড. সোহেল আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. অবিরাম তালুকদার, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন, মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রহমান, আটগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, বাহাড়া ইউপি চেয়ারম্যান বিধান চন্দ্র চৌধুরী, হবিবপুর ইউপি চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ মজুমদার, শাল্লা ইউপি চেয়ারম্যান জামান চৌধুরী, কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা উপজেলার ধনপুর ইউপি চেয়ারম্যান হরনাথ সরকার প্রমুখ।
সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোণা জেলার আন্তঃ ইউনিয়ন ফুটবল প্রতিযোগিতায় ফাইনাল খেলায় অংশগ্রহণ করে ধনপুর ইউপি বনাম বাহাড়া ইউপি। টানটান উত্তেজনায় চলে দু’দলের খেলা। পরে ট্রাইব্রেকারে ধনপুর ইউপি বিজয়ী হয়। প্রতিমন্ত্রী বিজয়ীদের মাঝে স্বর্ণের নৌকা পুরস্কার তোলে দেন। খেলায় কিশোরগঞ্জ জেলাসহ উপজেলার অর্ধলাখ দর্শকের উপস্থিতি ছিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন