রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সরকারি হাসপাতাল ছেড়ে প্রসূতি মায়ের সন্তান রাস্তায় প্রসব



সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সরকারি হাসপাতাল ছেড়ে প্রসূতি মায়ের মৃত সন্তান রাস্তায় প্রসব করায় এঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার( ১ অক্টোবর) সকাল ৯ টার দিকে জগন্নাথপুর পৌর এলাকার বাড়ি জগন্নাথপুর গ্রামের শফিক মিয়ার গর্ভবতী স্ত্রী রুজি বেগমকে (২৬) সন্তান প্রসবের জন্য জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন সহ সহযোগিরা অনেক চেষ্টা করেও প্রসূতি মায়ের ডেলিভারী করা সম্ভব হয়নি।

যে সন্তান পৃথিবীতে আসার জন্য ছটফট করছে। আর  রুজি বেগম তখন অসহ্য যন্ত্রণা আছেন। সন্তান প্রসবের কষ্টে  রুজি বেগম ব্যথায় কাতরাচ্ছিলেন। রুজি বেগমের পাশে  ডাক্তার, নার্স কেউই পাশে না থাকায়  রুজি বেগম প্রসব যন্ত্রনা সহ্য করতে না পেরে এক পর্যায়ে বেলা প্রায় ১২ টার দিকে  কাউকে কিছু না বলে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে যাওয়ার উদ্দেশ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের বেড ছেড়ে চলে যেতে চাইলে হাসপাতালের সামনে রাস্তায় একটি মৃত সন্তান জন্ম প্রসব করেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র শফিকুল হক ও প্রসূতির আত্মীয়রা অভিযোগ করে বলেন, ডা. সাজ্জাদ হোসেনের অবহেলায় প্রসূতি মা কষ্ট পেয়েছেন এবং তাঁর নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে।

 ডা. মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রসূতির সন্তান গর্ভেই মৃত ছিল। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রসূতিকে সিলেটে রেফার করা হয়নি। তিনি কাউকে না বলে নিচে রাস্তায় চলে যান। এরপরও আমরা ওখানেই ডেলিভারী করেছি। এতে আমরা কোন অবহেলা করিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন