সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

মোস্তাফিজ জাদুতে বাংলাদেশের শ্বাসরুদ্ধকর জয়



যে ম্যাচে হারলেই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়া তো নিশ্চিত সেই ম্যাচেই এমন শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থা। শেষ সময়ে তো অনেকটা আফগানিস্তানের দিকে ঝুঁকেই পড়েছিলো ম্যাচ। সেই অতি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতেই বাংলাদেশকে জিতিয়ে দিলেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজ।

তার শেষ ওভারের জাদুতেই বাংলাদেশ ফিরলো জয়ের ধারায়। আর টিকিয়ে রাখলো ফাইনালে খেলার আশা। রবিবার এশিয়া কাপের সুপার ফোরের ম্যাচে আফগানিস্তানকে তিন রানে হারাল টাইগাররা। এই জয়ে টাইগারদের ফাইনাল খেলার আশা টিকে থাকল।

আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

খেলার ৪৮তম ওভারেও বল হাতে আসেন মোস্তাফিজ। কিন্তু ওভারে দিয়ে দেন ১২ রান। পরের ওভারে সাকিবও খরুচে। ফলে শেষ ওভারে আফগানদের প্রয়োজন মাত্র ৮ রান! আটকাতে পারবেন তো মুস্তাফিজ? এই প্রশ্ন তখন মাঠ আর টিভি পর্দার কোটি কোটি দর্শকদের।

মোস্তাফিজ পারলেন। মোস্তাফিজ শেষ ওভারে দিলেন মাত্র ৪ রান। ‘জাদুকরী’ এক ওভারে জয় এনে দিলেন দলকে। ম্যাচ শেষে কাটার মাস্টারকে ’জাদুকর’ বলে গেলেন অধিনায়ক মাশরাফিও।

প্রথমে টস জিতে এ ম্যাচে ব্যাট করে বাংলাদেশ। আফগানদের সামনে ২৫০ রানের লক্ষ্য দাঁড় করায় মাহমুদুল্লাহরা। দলের হয়ে মাহমুদুল্লাহ ৭৪ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন। এছাড়া ইমরুল কায়েস খেলেন হার না মানা ৭২ রানের ইনিংস। তার আগে অবশ্য বাংলাদেশ দলের শত রানের আগে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে যায়। সেখান থেকে দলকে বের করে আনেন মাহমুদুল্লাহ এবং কায়েস।

জবাবে ব্যাট করতে নামা আফগানদের শুরুতে ২ উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। এরপর শাহজাদ এবং হাসমতউল্লাহ শাহেদি ৬৩ রানের জুটি গড়েন। শাহজাদকে ৫৩ রানে বোল্ড করে জুটি ভাঙেন মাহমুদুল্লাহ। এরপর আবার শাহেদি এবং আসগর আফগান দাঁড়িয়ে যান। শাহেদিকে ৭১ রানে এবং আসগর আফগানকে ৩৯ রানে ফেরান মাশরাফি। শেষ চার ওভারে জয়ের জন্য আফগানদের দরকার ছিল ৪২ রান। কিন্তু মুস্তাফিজ-সাকিবরা সে রান নিতে দেননি। শেষ ১০ বলে সাকিব-মুস্তাফিজ দারুণ বল করেছেন।

বাংলাদেশের হয়ে এ ম্যাচে ১০ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৬২ রানে ২ উইকেট নেন মাশরাফি। এছাড়া মোস্তাফিজ ২ উইকেট এবং মাহমুদুল্লাহ একটি উইকেট নেন। আফগানিস্তানের হয়ে ১০ ওভারে ৫৪ রানে ৩ উইকেট নেন আফতাব আলম। রশিদ খান ও মুজিব উর নেন একটি করে উইকেট।

সংবাদটি শেয়ার করুন