রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

ফ্রান্সে বাংলাদেশি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থীদের ভারতীয় দোভাষী না নেয়ার দাবি



বাংলাদেশি পরিচয়ে ভারতীয়রা ফ্রান্সে বসবাস করার অভিযোগ অনেক পুরনো। সম্প্রতি অন্য যে বিষয়টি অনেকেরই চিন্তার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা হল কলকাতার দোভাষী। বাংলাদেশি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থীরা যখন ওফপ্রা বা কমিশনে ইন্টার্ভিউ দেন তখন অধিকাংশ ক্ষেত্রে কলকাতার দুভাষীরা তাদের বক্তব্য বাংলা থেকে ফ্রান্সে ভাষান্তর করেন। এতে অনেক সময় যথাযথভাবে আশ্রয় প্রার্থীর বক্তব্য ইন্টার্ভিউ নেয়া অফিসারের কাছে তুলে ধরে হচ্ছে না বলে অভিযোগ করছেন অনেক ভুক্তভোগী। এক্ষেত্রে এসব দোভাষী পর্যাপ্ত আবেগ নিয়ে উপস্থাপন করেন না। আবার অনেকে মনে করেন এসব দোভাষী ইচ্ছে করেই যথাযথভাবে আশ্রয় প্রার্থীর বক্তব্য তুলে ধরেন না। তাই এবার ফ্রান্সে বাংলাদেশি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থীরা সাক্ষাতের সময় ভারতীয় দোভাষী না নেয়ার দাবি তুলেছেন।


জানাগেছে, অনেক বাংলা শব্দ আছে যা বাংলাদেশে বহুলভাবে ব্যবহার হয়, অথচ এসব দোভাষীরা এ শব্দের সাথে মোটেই পরিচিত নন। যেমন গাছ শব্দটি। এসব অভিযোগ এবং এর করনীয় নিয়ে গতকাল কেথসীমার গ্রাম বাংলা রেস্টুরেন্ট এ এক আলোচনা অনুষ্টিত হয়। সংক্ষিপ্ত পরিসরে এ আলোচনা থেকে আগামী ২৪ জুন রবিবার একই স্থানে সকলের অংশ গ্রহণে আরেকটি আলোচনা সভার ডাক দেয়া হয়েছে। এখান থেকে সকলের ঐক্যমতের ভিত্তিতে পরবর্তী করনীয় ঠিক করা হবে। এতে ড. আব্দুল মালেক ফরাজি ও সুনাম উদ্দিন খালেককে সমন্বয়কের দায়িত্ব দেয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন