সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯

শক্তিশালী কলম্বিয়ার বিপক্ষে জাপানের ইতিহাস গড়া জয়



উল্লসিত জাপান। ছবি : গেটি ইমেজ

রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ এইচে সবচেয়ে পিছিয়ে রাখা হয়েছিল জাপানকে। আর পরিষ্কার ফেভারিট ধরা হয়েছিল কলম্বিয়াকে। সেই এইচ গ্রুপের ম্যাচে গতকাল দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের দেশ গ্রুপ ফেবারিট কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে এশিয়া অঞ্চলের দেশ জাপান। জাপানের হয়ে এ ম্যাচে ১টি করে গোল করেছেন মিডফিল্ডার শিনজি কাগাওয়া এবং ফরোয়ার্ড ইয়োয়া ওসাকা। অন্যদিকে কলম্বিয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি এসেছে মিডফিল্ডার হুয়ান ফার্নান্দো কুয়েন্টিরোর পা থেকে।

কলম্বিয়ার অবস্থান এখন র‌্যাঙ্কিংয়ের ১৬ নম্বরে, অন্যদিকে র‌্যাঙ্কিংয়ের ৬১ নম্বরে অবস্থান করছে জাপান। তাই র‌্যাঙ্কিংয়ে ও জাপানের বিপক্ষে গতকালের ম্যাচটিতে নিশ্চিত ফেভারিট ছিল কলম্বিয়া। সে হিসেবে এ দিন সহজ জয়ের লক্ষ্য নিয়েই রাশিয়ার মরডোভিয়া স্টেডিয়ামে কোচ আকিরা নিশিনোর দলের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিল কোচ হোসে পেকারম্যানের দল। তবে এ দিন ম্যাচের শুরু থেকেই শক্তিশালী কলম্বিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে খেলতে থাকে এশিয়ার দেশ জাপান। যদিও এ দিন ভাগ্যও জাপানের পক্ষে ছিল। মঙ্গলবার ম্যাচের শুরুতেই এবারের বিশ্বকাপের প্রথম লালকার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন কলম্বিয়ার কার্লোস সানচেজ।

 রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রথম লালকার্ড। ছবি : গেটি ইমেজ

ম্যাচের তিন মিনিটের মাথায় ডি-বক্সের ভেতর শিনজি কাগাওয়ার শট ইচ্ছাকৃতভাবে হাত দিয়ে আটকে দেন তিনি। ফলে রেফারি সঙ্গে সঙ্গে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন এবং সানচেজকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান। এ সময় পেনাল্টি কিক থেকে গোল করে জাপানকে এগিয়ে নেন শিনজি কাগাওয়া।

শিনজি কাগাওয়া। ছবি : গেটি ইমেজ

তবে দশ জনের দল নিয়েও জাপানের সঙ্গে সমানতালে লড়াই করে কলম্বিয়া। সমতায় ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকা কলম্বিয়া অবশেষে কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায় ম্যাচের ৩৯তম মিনিটে। এ সময় ডি-বক্সের সামান্য বাইরে ফাউলের শিকার হন রাদামেল ফ্যালকাও। ফলে ফ্রি-কিক পায় কলম্বিয়া এবং দারুণ এক ফ্রি কিক শটে জাপানিজ খেলোয়াড়দের বানানো মানব দেয়ালের পায়ের নিচ দিয়ে বল জালে জড়ান মিডফিল্ডার হুয়ান ফার্নান্দো কুয়েন্টিরো।

কিন্তেরোর ফ্রিকিক আটকাতে পারেননি জাপান গোলরক্ষক কাওয়াশিমা। ছবি : রয়টার্স

এ দিন ইনজুরির কারণে প্রথমার্ধে খেলতে না নামলেও দ্বিতীয়ার্ধের ১৪তম মিনিটে হামেস রদ্রিগেজকে মাঠে নামান কলম্বিয়ার কোচ। কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি। উল্টো ম্যাচের ৭৩তম মিনিটে হোন্ডার কর্নার কিক থেকে ফরোয়ার্ড ওসাকা গোল করলে ফের এগিয়ে যায় জাপান।

ইয়োয়া ওসাকা। ছবি : গেটি ইমেজ

এরপর ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এশিয়ার দলটি।

উল্লেখ্য, এশিয়া অঞ্চল থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপে পাঁচটি দেশ অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেই স্বাগতিক রাশিয়ার কাছে ৫-০ গোলের হার দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হয় এশিয়ার দেশ সৌদি আরবের। এরপর আশা জাগিয়েও ফ্রান্সের কাছে ২-১ গোলে হেরেছে এশিয়া অঞ্চল থেকে বিশ্বকাপে অংশ নেয়া ওশেনিয়া অঞ্চলের দেশ অস্ট্রেলিয়া এবং সৌদি আরবের মতো হার দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ারও। অন্যদিকে মরক্কোর বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় দিয়ে এশিয়ার দেশ ইরানের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হলেও ওই ম্যাচে ইরানের পারফরম্যান্স মোটেই মন ভরাতে পারেনি সমর্থকদের। মরক্কোর বিপক্ষে ম্যাচটিতে শেষ মুহূর্তের আত্মগাতী গোলে জয় পেয়েছে ইরান। তাই গতকালের আগ পর্যন্ত বেশ সমালোচিত হয়েছে বিশ্বকাপে এশিয়ার দেশগুলোর পারফরম্যান্স। তবে অবশেষে গতকাল শক্তিশালী কলম্বিয়াকে দাপটের সঙ্গে হারিয়ে এশিয়ার মান রক্ষা করেছে জাপান। তাছাড়া এই জয়ে দক্ষিণ আমেরিকার কোনো দেশের বিপক্ষে বিশ্বকাপে এশিয়ার প্রথম দল হিসেবে ও জয়ের ইতিহাস গড়লো ‘সামুরাই ব্লু’রা।

সংবাদটি শেয়ার করুন